Breaking

Tuesday, 10 December 2019

অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ১০ বা কিউ এর নতুন সব ফিচার দেখুন এক নজরে

অ্যান্ড্রয়েড কিউ

অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ ভার্সন সম্পর্কে জানতে চান? আজ আমরা জানবো এন্ড্রয়েড এর সর্বশেষ ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ১০ বা অ্যান্ড্রয়েড কিউ সম্পর্কে। মোবাইল ফোন প্রেমীদের জন্য সুখবর হলো গত ৩রা সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে রিলিজ হয়েছে এন্ড্রোয়েড ১০। যারা এখনো নতুন ভার্সনটির আকর্ষনীয় ফিচারগুলি সম্পর্কে জানেন না তারা জেনে নিন এখানে।

তরুণ তরুণীরা নতুন ফোনের বিষয়ে খুবই এক্সাইটেড থাকেন। নতুন স্মার্টফোন কেনার সময় তারা অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ ভার্সনটিই পেতে চান। এজন্য এন্ড্রোয়েড ভার্সন আপডেট নিয়েই সাজানো হয়েছে আজকের পোস্টটি।

    এন্ড্রয়েড কি?





    এন্ড্রয়েড কি সে সম্পর্কে আশাকরি আর নতুন করে বলার কিছু নেই। এক কথায় অ্যান্ড্রয়েড হলো বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম।

    এন্ড্রয়েড ভার্সন কি?

    এন্ড্রয়েড ভার্সন বিষয়েও নতুন কিছুই বলার নেই। অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন হলো এই অপারেটিং সিস্টেমের বিভিন্ন সংস্করণ। এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম এর উন্নয়ন কাজ প্রতিনিয়তই এগিয়ে চলেছে। নিত্য নতুন ফিচার যোগ করে এবং আরো ব্যবহার উপযোগী করে রিলিজ করা হয় এন্ড্রয়েড ভার্সন সমূহ।

    অ্যান্ড্রয়েড ১০ বা অ্যান্ড্রয়েড কিউ এর ফিচারসমূহ





    ১০ বা কিউ হলো সপ্তদশ অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন। বেশ কিছু আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে ভার্সনটিতে। আসুন জেনে নেয়া যাক বিশেষ বিশেষ ফিচারসমূহ
    লাইভ ক্যাপশন: অ্যান্ড্রয়েড ১০ এর সবচেয়ে আকর্ষণীয় ফিচার হলো লাইভ ক্যাপশন। অনেক মুভিতে আমরা দেখি নিচে ডায়ালগগুলো লিখিত আকারে দেখানো হয়। ঠিক তেমনি যেকোনো ভিডিও, পডকাস্ট বা অডিও মেসেজের নিচে বক্তব্যগুলো লিখিত আকারে দেখা যাবে নতুন ভার্সনের এন্ডয়েডে। এমনকি নিজের তৈরি করা ভিডিওতেও কোনো ধরনের ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়াই এক ক্লিকেই এরকম লাইভ ক্যাপশন দেখা যাবে কোনো রকম ভিডিও এডিটিং ছাড়াই!

    স্মার্ট রিপ্লাই: মেসেজিং অপশনে নতুন ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। ফলে কেউ কোনো লোকেশনে আমন্ত্রণ জানিয়ে মেসেজ দিলে প্রথমে লাইক সাজেস্ট করবে মেসেজ অ্যাপটি। এরপর গুগল ম্যাপের মাধ্যমে লোকেশন দেখিয়ে দেবে।




    সাউন্ড এমপ্লিফায়ার: সাউন্ড এমপ্লিফায়ারের মাধ্যমে আগের চেয়ে আরও ক্লিয়ার সাউন্ড শোনা যাবে। সাউন্ড বুস্ট, ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজ ফিল্টার এবং ফাইন টিউনের সাহায্যে সাউন্ড সিস্টেম আরও উন্নত করা হয়েছে। ফলে আরও পরিস্কারভাবে কথা বলা, টিভি দেখা অথবা কোনো অডিও/ভিডিও লেকচার শোনা যাবে। এজন্য হেডফোন ব্যবহার করতে হবে।

    গেসচার নেভিগেশন: ফোনের নেভিগেশন আরও উন্নত করা হয়েছে। ব্যাক বাটন থাকছেনা। পুল আপ, সোয়াইপ আপ করেই সামনে, পিছনে যাওয়া যাবে। শুধু হোম বাটন থাকছে।


    ডার্ক থিম: ডার্কমুড অন করে ফোনের ব্যাটারির চার্জ আরও দীর্ঘস্থায়ী করা যাবে। ডার্কমুডে সম্পূর্ণ কালো রং আসবে এবং এ্যাপসগুলোর চেহারাও পরিবর্তন হয়ে যাবে।

    প্রাইভেসি: নতুন ভার্সনে ইউজারের ডাটা প্রাইভেসিতে আরও বেশি কন্ট্রোল দেয়া হয়েছে। ডিভাইসের ডাটা কখন, কিভাবে শেয়ার হচ্ছে তা আরও ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

    দ্রুততম সিকিউরিটি আপডেট: সিকিউরিটি বা প্রাইভেসি জনিত কোনো সমস্যা বা আপডেট থাকলে তা প্লে স্টোর থেকে দ্রুত সমাধান করা হবে। যেভাবে বিভিন্ন এ্যাপসের আপডেট দেয়া হয় সেরকম সিকিউরিটি আপডেট সরবরাহ করা হবে।

    ফোকাস মুড: ফোকাস মুডের সাহায্যে যে কোনো অ্যাপকে ট্যাপ করে সাময়িকভাবে পজ করে রাখা যাবে।




    ফ্যামিলি লিংক: ফ্যামিলি লিংকের মাধ্যমে ফোনে বাচ্চাদের কার্যক্রম সীমিত এবং নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। স্ক্রিন টাইম সেট করা যাবে। কোন অ্যাপস কতক্ষণ ব্যবহার করা হয়েছে তা মনিটর করা যাবে। অনলাইনে বাচ্চারা কি শিখবে বা কোথায় খেলবে ইত্যাদি নির্ধারণ করে দেয়া যাবে।

    আরো বিস্তারিত জানতে চান? দেখুন Android এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট।

    বাংলায় ভালোভাবে টাইপ করতে আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য বাংলা কিবোর্ড ডাউনলোড করুন।

    No comments:

    Post a comment