Breaking

Translate

Thursday, 25 April 2019

April 25, 2019

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮ সার্কুলার | প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা 2019 ১০ই মে

প্রাথমিক_শিক্ষক_নিয়োগ_সার্কুলার

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮ সার্কুলার,প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া,প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ যোগ্যতা, প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন,প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা 2019 ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে সমকাল ব্লগে।


প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮ সার্কুলার




প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৮ প্রকাশিত হয়েছিল ৩০শে জুলাই ২০১৮।আবেদন করার সময় ছিলো ১লা আগস্ট থেকে ৩০শে আগস্ট ২০১৮ পর্যন্ত।এবার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার জন্য রেকর্ড সংখ্যক ২৪ লাখ ১ হাজার ৫৯৭ জন প্রার্থী আবেদন করেছেন।অথচ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৮ অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ করা হবে সে তুলনায় মাত্র ১২০০০!এ থেকেই বোঝা যাচ্ছে কিরকম প্রতিযোগিতামূলক হতে যাচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২০১৮।

এদিকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেনের দেয়া এক বক্তব্যে জানা গেছে এবছর অর্থাৎ ২০১৯ সালেই আবারও নিয়োগ দেয়া হবে ২০ হাজার প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক।প্রাক প্রাথমিক শ্রেণীতে ভর্তির বয়স ৫ বছর থেকে কমিয়ে ৪ বছর করা হবে এবং প্রাক প্রাথমিক শ্রেণীর মেয়াদ হবে ২ বছর।এজন্যই নিয়োগ দেয়া হবে আরো বিশ হাজার প্রাক প্রাথমিক শিক্ষক।প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ সার্কুলার ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই যত দ্রুত সম্ভব তা জানিয়ে দেয়া হবে সমকাল ব্লগের পাঠকদের।

জানা গেছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শূন্যপদে আরও ১৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেয়া হতে পারে মার্চেই।এর মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক পর্যায়ে ১০ হাজার ও সহকারী শিক্ষক পদে ৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব গিয়াসউদ্দিন আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বলে জানা গেছে।এ সংক্রান্ত প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরকে (ডিপিই) ইতোমধ্যেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।বিশেষ কোনো জটিলতা সৃষ্টি না হলে মার্চেই নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হতে পারে।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রত্যাশীদের জন্য সুখবর হলো প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব সম্প্রতি জানিয়েছেন আগামী ৫ বছরে আরো ১ লক্ষ শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।আগামী ২০২০ সাল থেকেই দুই বছর মেয়াদী প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা চালু করার প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেছেন তিনি।সচিব মহোদয় আরো জানিয়েছেন বর্তমানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীর অনুপাত ১:৩৬।আরো এক লাখ শিক্ষক নিয়োগ করা হলে এ অনুপাত ১:৩০ এ নামিয়ে আনা যাবে।উল্লেখ্য গত দশ বছরে ১ লক্ষ ৮০ হাজার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হয়েছে।

হিসেব করলে দেখা যায় প্রতি আবেদনকারীর নিকট থেকে ১৬৮ টাকা করে আদায় করায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি 2018 থেকে সরকারের তথা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আয় হয়েছে ৪১ কোটি টাকার কাছাকাছি!

প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৯




প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ ২০১৯ এখনো নিশ্চিত হয়নি।প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা কবে হবে তা স্পষ্ট করেনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।তারিখ প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই তা এখানে জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রথমে ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসেই পরীক্ষা সম্পন্ন করার কথা থাকলেও অনিবার্য কারণবশত তা পেছানো হয়।অতিরিক্ত সংখ্যক প্রার্থী আবেদন করার কারণে পরীক্ষার আয়োজন নিয়ে হিমশিম খাচ্ছে কতৃপক্ষ।

এরপর ডিসেম্বরে পরীক্ষার সম্ভাবনার কথা থাকলেও সেটিও সম্ভব হয়নি। বলা হয়েছিলো জানুয়ারিতে হতে পারে প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৯।

পরবর্তীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৯ এর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিলো ১লা ফেব্রুয়ারিতে।

এরপর  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ সংক্রান্ত কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ১৫ই মার্চ ২০১৯।ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা থাকায় পুনরায় পিছানো হয় পরীক্ষার সময়।বলা হয়েছিল ফেব্রুয়ারীর প্রথম সপ্তাহেই সিদ্ধান্ত হবে কোন জেলায় কবে পরীক্ষা নেয়া হবে।

এদিকে দুঃখজনকভাবে আবারও পিছানো হয় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা।১৫ই মার্চ প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা নেয়ার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও পরীক্ষা নিতে পারেনি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়।প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর dpe জানায় ১৩ই মার্চ প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উদ্বোধন করা হবে।এজন্য সকল প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হচ্ছেনা ১৫ই মার্চ।তবে কখন পরীক্ষা নেয়া হবে তাও সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারেনি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।ধারণা করা হচ্ছিল মার্চের শেষে অথবা এপ্রিলের শুরুতে হতে পারে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৯।

ঘোষণা করা হয়েছিলো প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা 2019 অনুষ্ঠিত হবে ১৫ই এপ্রিল ২০১৯।

কিন্তু এপ্রিলেও হচ্ছেনা প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা।প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সর্বশেষ খবরে জানা গেছে মে মাসের মাঝামাঝি শুরু হবে পরীক্ষা।এখন আবার শোনা যাচ্ছে মে মাসের ১০ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে ১ম ধাপের পরীক্ষা।২০ হাজারের মধ্যে আবেদন জমা পড়েছে এরকম ৭টি জেলায় প্রথমে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।তবে প্রথমে কোন কোন জেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে তা এখনো জানা যায়নি।

সাধারণত পরীক্ষার প্রশ্ন প্রণয়ন এবং পরীক্ষা পরিচালনার দায়িত্ব থাকে ডিপিই এর উপর।এবার প্রশ্ন ফাঁস রোধ করার জন্য পরীক্ষা সংক্রান্ত সকল বিষয় পরিচালনা করা হবে সরাসরি প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে।এদিকে প্রশ্নপত্র প্রণয়ন,ওএমআর শীট ডিজাইন এবং মূল্যায়ন,পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ সংক্রান্ত টেকনিক্যাল বিষয়গুলো নিয়ে বুয়েটের সাথে মিটিং করেছে মন্ত্রণালয়।জানা গেছে এবার ২০টির অধিক প্রশ্ন সেটে পরীক্ষা নেয়া হতে পারে।এছাড়া অধিক সংখ্যক পরীক্ষার্থী আবেদন করায় পূর্বের চেয়ে কেন্দ্রের সংখ্যাও বাড়ানো হবে।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ ২০১৯ প্রক্রিয়া




প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর জানিয়েছে এবার সহকারী শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বেশকিছু পরিবর্তন হতে যাচ্ছে।এতো অধিক সংখ্যক আবেদনকারীর মধ্য থেকে শুধু এমসিকিউ প্রশ্নের মাধ্যমে যোগ্য শিক্ষক বাছাই করা সম্ভব নয়। এজন্য প্রথমে এমসিকিউ পরীক্ষার মাধ্যমে ৫০ হাজার প্রার্থীকে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ করা হবে। এরপর পিএসসির আদলে লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে ৩৬ হাজার প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত করা হবে। 

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ যোগ্যতা

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে আবেদনের যোগ্যতা ২০১৩ সালের নীতিমালা অনুযায়ী আগের মতোই থাকছে।অর্থাৎ পুরুষদের জন্য ন্যুনতম গ্র্যাজুয়েট এবং নারীদের জন্য এইচএসসি পাশ।আগের মতোই ৬০% নারী কোটাও বহাল রয়েছে।তবে আগামী বিজ্ঞপ্তি হতে পরিবর্তন ঘটবে এ নিয়মের!আগামীতে নারী পুরুষ উভয়ের জন্যই ন্যুনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা গ্র্যাজুয়েট নির্ধারণ করা হবে।


প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রবেশপত্র ডাউনলোড

পরীক্ষার সুনির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারিত হওয়ার পরপরই প্রত্যেক আবেদনকারীর নিকট এসএমএস দিয়ে তা জানিয়ে দেয় কতৃপক্ষ।তখন নিচের ওয়েবসাইট থেকে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ প্রবেশপত্র ডাউনলোড করা যাবে।প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের প্রবেশপত্র ছাড়া পরীক্ষা দেয়া সম্ভব নয়।সুতরাং পরীক্ষায় অংশগ্রহণের পূর্বে অবশ্যই আপনার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে অনলাইনে ডাউনলোড করে নিন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রবেশপত্র।সাধারণত পরীক্ষার ১০ দিন আগে এসএমএস পাঠানো হয় পরীক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনে।তখন থেকেই ডাউনলোড করা যায় পরীক্ষার প্রবেশপত্র।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯





প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ ২০১৯ রেজাল্ট প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই এখানে আপডেট দেয়া হবে।
কাজেই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার পর নিয়মিত চোখ রাখুন সমকাল ব্লগে।

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন

প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতন কত জানতে চান?বর্তমান বেতন স্কেল অনুযায়ী প্রশিক্ষণবিহীন প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ১৫তম গ্রেড অনুযায়ী ৯৭০০ টাকা স্কেলে বেতন পান এবং প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক ১৪তম গ্রেডে ১০২০০ টাকা স্কেলে বেতন পান।

তবে শীঘ্রই প্রাথমিক শিক্ষকদের দাবি অনুযায়ী গ্রেড পরিবর্তন করে বেতন বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি পূরণ করছে সরকার।নতুন বিধিমালা অনুযায়ী সহকারী শিক্ষক পাবেন ১২তম গ্রেডে বেতন, আর প্রধান শিক্ষক পাবেন ১০ম গ্রেডে।শিক্ষক নিয়োগ বিধিমালা সংশোধন করে এই পরিবর্তন আনা হচ্ছে শীঘ্রই।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের হিসাব রক্ষক নিয়োগ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হিসাব রক্ষক পদ তৈরির নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে।এজন্য প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন করে হিসাব রক্ষক নিয়োগ করা হবে।জানা গেছে চলতি অর্থ বছরেই সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে সারা দেশে ৬৫ হাজার ৯৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য হিসাব রক্ষক পদে নিয়োগ সার্কুলার প্রকাশ করা হবে।তবে এখনও এটি নীতিগত সিদ্ধান্তের পর্যায়ে আছে এজন্য আবেদনের যোগ্যতা ইত্যাদি বিস্তারিত জানা যায়নি।বিস্তারিত জানতে নিয়মিত চোখ রাখুন সমকাল ব্লগে।







Monday, 22 April 2019

April 22, 2019

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত | এস এস সি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ দেখুন

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত

এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই ফলাফলের বিস্তারিত আমরা পাঠকদের জানিয়ে দেবো।পাশের হার,জিপিএ ৫ সহ বিস্তারিত তথ্য সমকাল ব্লগের পাঠকদের জানিয়ে দেয়া হবে।এজন্য প্রিয় এসএসসি পরীক্ষার্থী বন্ধু এবং তাদের অভিভাবক,শুভানুধ্যায়ীগণ দ্রুত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ এবং নাম্বার সহ এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ পেতে নিয়মিত চোখ রাখুন সমকাল ব্লগে।একইসঙ্গে মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিল পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের ভোকেশনাল পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ সম্পর্কেও বিস্তারিত জানা যাবে সমকাল ব্লগে।
এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

এসএসসি পরীক্ষা ২০১৯ সম্পর্কে কিছু সাধারণ তথ্য




২রা ফেব্রুয়ারি শুরু হয় এসএসসি পরীক্ষা ২০১৯ এবং ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার রুটিন অনুযায়ী ২৬ শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলে তত্ত্বীয় পরীক্ষা।এবছর মোট একুশ লাখ পঁয়ত্রিশ হাজার তিনশত তেত্রিশ জন পরীক্ষার্থী মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় অংশ নেয় যার মাঝে ছাত্র ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন এবং ছাত্রী ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী গতবছরের তুলনায় এবছর এসএসসি পরীক্ষার্থী বেড়েছে ১ লাখ ৩ হাজার ৪৩৪ জন।এবার আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭ লাখ ১০২ জন।মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষার্থী ৩ লাখ ১০ হাজার ১৭২ জন এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ১ লাখ ২৫ হাজার ৫৯ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।মোট পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ৩ হাজার ৪৯৭টি এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী মোট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ২৮ হাজার ৬৮২টি।এছাড়া বিদেশি আটটি পরীক্ষা কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় মোট ৪৩৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।

এসএসসি ২০১৯ ফলাফল কবে হবে




এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেয়া সকল বোর্ডের ছাত্রছাত্রীদের ফল আগামী ৬ থেকে ৯ মে’র মধ্যে যেকোনো দিন প্রকাশ করা হবে।সোমবার ৮ই এপ্রিল ফল প্রকাশে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতির জন্য সম্ভাব্য এই দিনগুলো নির্ধারণ করেছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি।জানা গেছে, ওই চার দিনের যেকোনো দিন ফল প্রকাশের জন্য বোর্ডগুলো প্রস্তুত রয়েছে এবং এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে আগামী সপ্তাহের শুরুতেই সুপারিশ পাঠানো হবে। মন্ত্রণালয় এ সুপারিশের অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর কাছে সময় চাইবে।প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে যে তারিখ দেয়া হবে ওই দিনই ফল প্রকাশ করা হবে।প্রচলিত রীতি অনুযায়ী ফল প্রকাশের দিন প্রধানমন্ত্রীর হাতে শিক্ষামন্ত্রী বোর্ডের চেয়ারম্যানদের সাথে নিয়ে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেবেন।এরপর শিক্ষামন্ত্রী আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফল ঘোষণা করবেন। ssc রেজাল্ট ২০১৯ এর সঠিক তারিখ জানতে নিয়মিত পড়ুন সমকাল ব্লগ।

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দেখার উপায়

নাম্বার সহ রেজাল্ট ssc দেখার সবচেয়ে সাধারণ উপায় হলো নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে পরীক্ষার ফলাফল সংগ্রহ করা।সেইসাথে মোবাইল ফোনের এসএমএসের মাধ্যমে এবং ওয়েবসাইট থেকেও দ্রুত এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল দেখার উপায় তো রয়েছেই।

মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দেখার নিয়ম

  • প্রথমে ফোনের এসএমএস অপশনে লিখুন SSC
  • একটি স্পেস দিয়ে লিখুন নিজের শিক্ষা বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর
  • আরেকটি স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখুন
  • সর্বশেষ আরেকটি স্পেস দিয়ে 2019 লিখে পাঠিয়ে দিন 16222 নম্বরে যে কোনো অপারেটর থেকে
  • যেমনঃ SSC SYL 012345 2019 Send to 16222

এস এস সি পরীক্ষার ফলাফল Infographic
এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ infographic

সকল বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর জানতে দেখুন জেএসসি রেজাল্ট ২০১৯
এছাড়া নিচের তালিকা থেকেও দেখে নিতে পারেন সকল বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর :
First Three
Letters
Board Name
DHA Dhaka Board
BAR Barisal Board
SYL Sylhet Board
COM Comilla Board
CHI Chittagong Board
RAJ Rajshahi Board
JES Jessore Board
DIN Dinajpur Board
MAD Madrasha Board

ওয়েবসাইট থেকে ইন্টারনেটে এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দেখার নিয়ম




অনলাইনে সরকারি দুটি ওয়েবসাইট থেকে সরাসরি এসএসসি পরীক্ষা সহ সকল পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল দেখা যায়।
www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্ট দেখার নিয়ম

  • প্রথমে শিক্ষা বোর্ডের সরকারি অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে
  • নিচের ছবির মতো একটি পেজ আসবে।এখানে SSC/Dakhil অথবা SSC(Vocational) সিলেক্ট করতে হবে
  • পরীক্ষার বছর অর্থাৎ ২০১৯ সিলেক্ট করতে হবে
  • নিজের বোর্ড সিলেক্ট করতে হবে
  • রোল,রেজিস্ট্রেশন নম্বর সঠিকভাবে দিয়ে submit বাটনে ক্লিক করতে হবে
এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯


এসএসসি পরীক্ষার জিপিএ পদ্ধতি


এসএসসি পরীক্ষার গ্রেডিং পদ্ধতি চালু হয়েছে ২০০১ সাল থেকে।যারা এসএসসি পরীক্ষার গ্রেডিং পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে চান তারা নিচের ছবি থেকে কত নম্বর পেলে কোন গ্রেড পাওয়া যায় তা সহজেই জেনে নিতে পারবেন।
২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল
এসএসসি গ্রেডিং সিস্টেম

২০০১ সালে যখন প্রথম জিপিএ পদ্ধতি শুরু হয় সেবছর জিপিএ ৫ পেয়েছিলো কতো জন জানেন কি?শুনলে অনেকেই চমকে যাবেন!মাত্র ৭৬ জন!যেখানে ২০১৭ সালে এসে সংখ্যাটি দাঁড়িয়েছে ১,০৪,৭৬১ জন!প্রায় ১৩৭৯ গুণ বেশি!সর্বশেষ ২০১৮ সালের এসএসসির ফলাফল অনুযায়ী সংখ্যাটি এখন ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন।




যে হারে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ ৫ অর্জনকারী বেড়েছে সে হারে শিক্ষার মান বেড়েছে কিনা তা নিয়ে অনেকেই সন্দিহান। ইতোমধ্যেই শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান নিয়ে বিভিন্ন মিডিয়ায় নেতিবাচক রিপোর্ট দেখা গেছে ।দেখা গেছে জিপিএ ৫ পাওয়া ছাত্র হওয়া সত্ত্বেও একেবারে সাধারণ প্রশ্নেরও সঠিক উত্তর দিতে পারেনি অনেকে। ইদানীং জিপিএ ৫ বিক্রি হওয়ার মতো শিক্ষা বিধ্বংসী বিষয়ও উঠে এসেছে বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের রিপোর্টে! দেশের শিক্ষার মান উন্নত হোক এটি সকলেই চান। তবে তা যেনো শুধু কাগজে কলমে লোক দেখানোর জন্য না হয় ।এতে করে শুধু যে শিক্ষা ব্যাবস্থাই ধ্বংস হবে তা নয় বরং দেশ বঞ্চিত হবে দক্ষ এবং শিক্ষিত জনশক্তি থেকে।

ধারাবাহিকভাবে ২০০১ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত এসএসসিতে জিপিএ ৫ অর্জনকারী ছাত্রছাত্রীদের সংখ্যা নিম্নে দেয়া হলো। 
১)২০০১ সালে ৭৬ জন।
২)২০০২ সালে ৩২৭ জন।
৩)২০০৩ সালে ১,৩৮৯ জন।
৪)২০০৪ সালে ৮,৫৯৭ জন।
৫)২০০৫ সালে ১৫,৬৩১ জন।
৬)২০০৬ সালে ২৪,৩৮৪ জন।
৭)২০০৭ সালে ২৫,৭৩২ জন।
৮)২০০৮ সালে ৪১,৯১৭ জন।
৯)২০০৯ সালে ৪৫,৯৩৪ জন।
১০)২০১০ সালে ৬২,১৩৪ জন।
১১)২০১১ সালে ৬২,২৮৮ জন।
১২)২০১২ সালে ৮২,২১২ জন।
১৩)২০১৩ সালে ৯১,২২৬ জন।
১৪)২০১৪ সালে ১,৪২,২৭৬ জন!
১৫)২০১৫ সালে ১,১১,৯০১ জন!
১৬)২০১৬ সালে ১,০৯,৭৬১ জন!
১৭)২০১৭ সালে ১,০৪,৭৬১ জন!
১৮) ২০১৮ সালে ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন।

এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯
এসএসসি রেজাল্ট ২০০২

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ ঢাকা বোর্ড

সর্বমোট ৫৩০৪২২ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষা ২০১৮ ঢাকা বোর্ড এ অংশগ্রহণ করে।এর মাঝে ২৫৯২৯৫ জন ছাত্র এবং ২৭১১২৭ জন ছাত্রী।এদের মাঝে ৪৩২২০১ জন পরীক্ষার্থী পাস করে যাদের মধ্যে ২০৬৮৯৭ জন ছাত্র এবং ২২৫৩০৪ জন ছাত্রী।ঢাকা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিলো ৮১.৪৮%।পাসের জন্য প্রতিটি আবশ্যিক ও ঐচ্ছিক বিষয়ে ন্যুনতম গ্রেড পয়েন্ট ১.০।ঢাকা বোর্ডে মোট ৪১৫৮৫ জন জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে যার মধ্যে ১৯৭১১ জন ছাত্র এবং ২১৮৭৪ জন ছাত্রী।এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হবে।

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ ঢাকা বোর্ড

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ বরিশাল বোর্ড




সর্বমোট ১০৩১২৪ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষা ২০১৮ বরিশাল বোর্ড এ অংশগ্রহণ করে।এর মাঝে ৫১৯১২ জন ছাত্র এবং ৫১২১২ জন ছাত্রী।এদের মাঝে ৭৯৫২১ জন পরীক্ষার্থী পাস করে যাদের মধ্যে ৩৯০৫১ জন ছাত্র এবং ৪০৪৭০ জন ছাত্রী।বরিশাল বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিলো ৭৭.১১%।পাসের জন্য প্রতিটি আবশ্যিক ও ঐচ্ছিক বিষয়ে ন্যুনতম গ্রেড পয়েন্ট ১.০।বরিশাল বোর্ডে মোট ৩৪৬২ জন জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে যার মধ্যে ১৬৬১ জন ছাত্র এবং ১৮০১ জন ছাত্রী।এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হবে।
এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ বরিশাল বোর্ড

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ চট্রগ্রাম বোর্ড

সর্বমোট ১৩৫১৪৮ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষা ২০১৮ চট্টগ্রাম বোর্ড এ অংশগ্রহণ করে।এর মাঝে ৬২৭৫৭ জন ছাত্র এবং ৭২৩৯১ জন ছাত্রী।এদের মাঝে ১০২০৩৭ জন পরীক্ষার্থী পাস করে যাদের মধ্যে ৪৭৬০৮ জন ছাত্র এবং ৫৪৪২৯ জন ছাত্রী।চট্টগ্রাম বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিলো ৭৫.৫%।পাসের জন্য প্রতিটি আবশ্যিক ও ঐচ্ছিক বিষয়ে ন্যুনতম গ্রেড পয়েন্ট ১.০।চট্টগ্রাম বোর্ডে মোট ৮০৯৪ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে যার মধ্যে ৩৯২২ জন ছাত্র এবং ৪১৭২ জন ছাত্রী।এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হবে।
এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ চট্টগ্রাম বোর্ড

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ কুমিল্লা বোর্ড

সর্বমোট ১৮২৭২০ জন পরীক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষা ২০১৮ কুমিল্লা বোর্ড এ অংশগ্রহণ করে।এর মাঝে ৮১২৪৩ জন ছাত্র এবং ১০১৪৭৭ জন ছাত্রী।এদের মাঝে ১৪৬৮৯৭ জন পরীক্ষার্থী পাস করে যাদের মধ্যে ৬৬০৩৭ জন ছাত্র এবং ৮০৮৬০ জন ছাত্রী।কুমিল্লা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিলো ৮০.৩৯%।পাসের জন্য প্রতিটি আবশ্যিক ও ঐচ্ছিক বিষয়ে ন্যুনতম গ্রেড পয়েন্ট ১.০।কুমিল্লা বোর্ডে মোট ৬৮৬৫ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে যার মধ্যে ৩৪৮৬ জন ছাত্র এবং ৩৩৭৯ জন ছাত্রী।এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হবে।
এসএসসি রেজাল্ট কুমিল্লা বোর্ড

এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দিনাজপুর বোর্ড

এসএসসি পরীক্ষা ২০১৮ দিনাজপুর বোর্ড এ সর্বমোট ১১৯৭১১ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।এর মাঝে ৬২১৭৩ জন ছাত্র এবং ৫৭৫৩৮ জন ছাত্রী।এদের মাঝে ৭১৯৫১ জন পরীক্ষার্থী পাস করে যার মধ্যে ৩৪৮৮৪ জন ছাত্র এবং ৩৭০৬৭ জন ছাত্রী।দিনাজপুর  বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ছিলো ৬০.১%।পাসের জন্য প্রতিটি আবশ্যিক ও ঐচ্ছিক বিষয়ে ন্যুনতম গ্রেড পয়েন্ট ১.০।দিনাজপুর বোর্ডে মোট ২২৯৭ জন পরীক্ষার্থী জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে যার মধ্যে ১৩৪৪ জন ছাত্র এবং ৯৫৩ জন ছাত্রী।এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হবে।
এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দিনাজপুর বোর্ড











Saturday, 20 April 2019

April 20, 2019

এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ বা এইচ এস সি পরীক্ষার ফলাফল 2019 দেখুন

এইচএসসি রেজাল্ট
এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ সম্পর্কে আলোচনার পূর্বে জেনে নেয়া যাক

এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৯ সম্পর্কে সাধারণ তথ্য

উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৯) ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল ১লা এপ্রিল সোমবার।আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলিয়ে মোট দশটি বোর্ডে এবার মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ১৩ লাখ ৫১ হাজার ৫০৫ জন।এর মধ্যে আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে শুধু এইচএসসি পরীক্ষার্থীই ছিলো ১১ লাখ ৩৮ হাজার ৭৪৭ জন।বর্তমানে এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ এর জন্য অপেক্ষমান এসকল পরীক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকগণ।এইচ এস সি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ এবং এইচ এস সি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সম্পর্কে সর্বশেষ খবর প্রচারিত হয়েছে সমকাল ব্লগে।কাজেই hsc ফলাফল ২০১৯ বা নাম্বার সহ এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ জানতে পড়ুন সমকাল ব্লগ।




এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ অনুযায়ী লিখিত পরীক্ষা শেষ ১১ মে।অতঃপর ১২ থেকে ২১ মের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষাও শেষ।এখন প্রশ্ন এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ কবে দিবে।এইচ এস সি পরীক্ষার ফলাফল 2019 এর সকল খবরই রয়েছে এখানে।এমনকি এইচ এস সি রেজাল্ট 2019 এর পাশাপাশি এসএসসি রেজাল্ট ২০১৯ এবং এসএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সম্পর্কেও বিস্তারিত জানা যাবে সমকাল ব্লগে।

এইচ এস সি পরীক্ষা ২০১৯ এ প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে গৃহীত ব্যাবস্থা

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা বোর্ডগুলো প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধসহ পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে।যেমনঃ

  • পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের আসন গ্রহণ করতে হবে।
  • কোনো পরীক্ষার্থীর কেন্দ্রে আসতে দেরি হলে তার নাম, রোল নম্বর ও দেরি হওয়ার কারণ উল্লেখ করে প্রতিদিন সংশ্লিষ্ট বোর্ডকে জানাবেন কেন্দ্র সচিব।
  • পরীক্ষা কেন্দ্রে দায়িত্ব পালনকারী ব্যক্তিদের মধ্যে শুধু কেন্দ্র সচিব সাধারণ মানের একটি ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।
  • অন্য কেউ মোবাইল ফোন বা অননুমোদিত ইলেকট্রনিকস যন্ত্র ব্যবহার করতে পারবেন না।
  • পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া অন্যরা কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে প্রবেশ করতে পারবেন না।
  • পরীক্ষা শুরুর মাত্র ২৫ মিনিট আগে কোন সেট প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা হবে,তা নির্ধারণ করে জানানো হবে।
  • ১ এপ্রিল থেকে ৬ মে পর্যন্ত দেশের সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত গুজব বা এ কাজে তৎপর চক্রগুলোর কার্যক্রমের বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো নজরদারি জোরদার করেছে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ কবে দিবে




সাধারণত পরীক্ষা শেষ হওয়ার দুই মাস পর প্রকাশিত হয় এইচএসসি ফলাফল।কাজেই বলা যায় জুলাই মাসেই প্রকাশিত হবে hsc ফলাফল ২০১৯।তবে সুনির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা হওয়ার পরেই তা জানিয়ে দেয়া হবে আমাদের পাঠকদের।

এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দেখুন এসএমএস এ

অন্যান্য পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলের মতোই এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ দেখা যাবে মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে।

২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল আপনার মোবাইলে পেতে মোবাইল এর মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুনঃ

HSC স্পেস বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর স্পেস রোল নম্বর স্পেস 2019

এরপর পাঠিয়ে দিন 16222 এই নাম্বারে।

উদাহরণঃ HSC DHA 012345 2019  SEND TO 16222 (যে কোন অপারেটর থেকে)

বাংলাদেশের সকল শিক্ষা বোর্ডের কোড নেম নিচের ছবিতে দেয়া হলো

এইচ এস সি রেজাল্ট 2019 দেখুন অনলাইনে




নাম্বার সহ এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ দেখার সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলো http://www.educationboardresults.gov.bd মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অধীনস্থ সকল পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল দেখা যায় এই ওয়েবসাইটে।যেমনঃ জেএসসি রেজাল্ট ২০১৯

hsc রেজাল্ট 2019 দেখার জন্য

  1. প্রথমে http://www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে। Examination এর ঘরে HSC/Alim সিলেক্ট করতে হবে।
  2. Year এর ঘরে 2019 সিলেক্ট করতে হবে।
  3. Board এর ঘরে নিজ শিক্ষা বোর্ড সিলেক্ট করতে হবে।
  4. Roll এর ঘরে রোল নম্বর দিতে হবে।
  5. Reg এর ঘরে রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিতে হবে।
  6. সংখ্যার ক্যাপচা বসাতে হবে।অর্থাৎ দুটি সংখ্যা দেয়া থাকবে এর যোগফল বসাতে হবে।
  7. সর্বশেষ Submit বাটনে ক্লিক করলেই চলে আসবে রেজাল্ট!
  8. পুনরায় অন্য কারো রেজাল্ট দেখতে চাইলে Reset বাটনে ক্লিক করে আগের মতোই সকল তথ্য দিয়ে সাবমিট করতে হবে।
এইচ এস সি রেজাল্ট

অনলাইনে এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ দেখার ২য় পদ্ধতি





এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৯ অনলাইনে দেখার জন্য আরেকটি সরকারি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে।এখানেও সকল মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষার ফলাফল দেখা যায়।পদ্ধতি প্রায় একইরকম তবে সামান্য কিছু পার্থক্য রয়েছে।যেমনঃ
  1. প্রথমে https://eboardresults.com/app/stud/ এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।
  2. এরপর আগের মতোই Examination,Year,Board এর ঘরগুলো সঠিকভাবে পুরন করতে হবে।
  3. অতঃপর Result type এ এসে নিজের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল দেখতে Individual result সিলেক্ট করতে হবে।
  4. এরপর আগের মতোই Roll,Registration নম্বর দিয়ে সঠিক ক্যাপচা কোডটি বসাতে হবে।
  5. সর্বশেষ Get Result এ ক্লিক করলেই চলে আসবে কাঙ্ক্ষিত ফলাফল।
এইচ এস সি ফলাফল

Thursday, 18 April 2019

April 18, 2019

এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সংশোধিত হয়েছে

সংশোধিত এইচএসসি রুটিন

এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯,এইচএসসি রুটিন ২০১৯ বা ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন এবং এইচএসসি রেজাল্ট ২০১৯ সংক্রান্ত সর্বশেষ খবর প্রকাশিত হয়েছে সমকাল ব্লগে।এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৯ শুরু হয় ১লা এপ্রিল সোমবার থেকে।২০১৯ সালের এইচ এস সি পরীক্ষার রুটিন প্রকাশিত হয়েছে ২৪শে ফেব্রুয়ারি।২০১৯ সালের hsc পরীক্ষার রুটিন এবং ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষার রুটিন উভয় রুটিনই প্রকাশ করা হলো সমকাল ব্লগে।



এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯





প্রিয় পরীক্ষার্থী বন্ধুরা সবাই নিশ্চয়ই এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে ব্যাস্ত।সেই সাথে অপেক্ষা করছো hsc পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ হাতে পাওয়ার জন্য।তোমাদের জন্য সুখবর হলো এইচ এস সি পরীক্ষার রুটিন 2019 অফিশিয়ালি প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই তোমাদের প্রিয় সমকাল ব্লগে তা প্রকাশিত হলো।hsc পরীক্ষার রুটিন ছবি আকারে এবং  PDF আকারে প্রকাশ করা হলো।সরাসরি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে সকল বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিনের PDF ফাইল ডাউনলোড করতে পারো নিচের লিংক থেকে।

এইচ এস সি পরীক্ষার রুটিন ২০১৯
hsc রুটিন ২০১৯ ২য় অংশ
২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন
এইচএসসি রুটিন ২০১৯


ডাউনলোড লিংক

সংশোধিত এইচএসসি রুটিন ২০১৯

পবিত্র শবে বরাতের কারণে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচিতে কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে।প্রথমে ২১ এপ্রিলকে পবিত্র শবে বরাতের তারিখ ধরে নিয়ে পরীক্ষার সময়সূচি করা হয়েছিল।কিন্তু চাঁদ অনুযায়ী এবার পবিত্র শবে বরাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২২ এপ্রিল।এ কারণে ওইদিনের পরীক্ষা পেছানো হয়েছে।

সোমবার ৮ই এপ্রিল বিকালে আন্তঃশিক্ষা বোর্ডের সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. জিয়াউল হক এসব তথ্য জানান।

২২ এপ্রিল পদার্থ বিজ্ঞান, (তত্ত্বীয়) দ্বিতীয়পত্র, হিসাব বিজ্ঞান দ্বিতীয়পত্র, যুক্তিবিদ্যা দ্বিতীয়পত্র এবং ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা (আব.) দ্বিতীয়পত্রের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। এছাড়া, পরপর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় পরীক্ষার্থীদের অসুবিধার কথা বিবেচনা করে সূচিতে পরিবর্তান আনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সংশোধিত এইচএসসি রুটিন ২০১৯ নিচে দেয়া হলো।
সংশোধিত এইচএসসি রুটিন ২০১৯


২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষার রুটিন




প্রিয় আলিম পরীক্ষার্থী বন্ধুরা ২০১৯ সালের আলিম পরীক্ষার চূড়ান্ত সময়সূচী প্রকাশিত হওয়ার পর তা এখানে সমকাল ব্লগে প্রকাশ করা হলো।আলিম পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ ছবি আকারে এবং আলিম পরীক্ষার রুটিন 2019 pdf আকারেও প্রকাশিত হলো।
আলিম পরীক্ষার রুটিন ২০১৯
ডাউনলোড লিংক

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এইচএসসি রুটিন ২০১৯ সংশোধন

পুনরায় কিছু পরিবর্তন এসেছে রুটিনে।২২শে এপ্রিলের এইচএসসি বিএম ও ভোকেশনাল এবং ডিপ্লোমা ইন কমার্স পরীক্ষার সূচি পরিবর্তন করেছে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড।বোর্ড থেকে এ বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

বলা হয়েছে,এইচএসসি বিএমের ২২শে এপ্রিল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-২ এবং বাণিজ্যিক ভূগোল বিষয়ের পরীক্ষা ২রা মে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে।ঐদিন দুপুর ২টা থেকে অনুষ্ঠিতব্য ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা-১ (নতুন সিলেবাস) এবং ব্যবসায় সংগঠন (পুরাতন সিলেবাস) পরীক্ষা ২রা মে দুপুর ২টা থেকে অনুষ্ঠিত হবে।এছাড়া এইচএসসি বিএমের ব্যবহারিক পরীক্ষা ২রা মের পরিবর্তে আগামী ৪ঠা মে থেকে থেকে শুরু হবে।

এদিকে, এইচএসসি ভোকেশনালের ২২শে এপ্রিল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য আত্মকর্মসস্থান ও ব্যবসায় উদ্যোগ পরীক্ষাটি ২৪শে এপ্রিল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে। আর ২২শে এপ্রিল দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিতব্য বিশেষায়িত সিভিল-১, বিশেষায়িত ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেক্ট্রনিক্স-১ এবং বিশেষায়িত মেকানিক্যাল-১ ঐচ্ছিক বিষয়ের পরীক্ষা আগামী ২৪শে এপ্রিল দুপুর ২টা থেকে অনুষ্ঠিত হবে।এছাড়া এইচএসসি ভোকেশনালে ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৩শে এপ্রিলের পরিবর্তে ২৫শে এপ্রিল থেকে শুরু হবে।

আর ২২শে এপ্রিল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য ডিপ্লোমা ইন কমার্সের উচ্চতর হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষাটি ২৭শে এপ্রিল সকাল ১০টায় এবং এদিন দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিতব্য শর্ট হ্যান্ড-১ (বাংলা) বিষয়ের পরীক্ষাটি ২৭শে এপ্রিল দুপুর ২টায় অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ডিপ্লোমা ইন কমার্সের ব্যবহারিক পরীক্ষার সূচি অপরিবর্তিত থাকবে।
সূত্র : দৈনিক শিক্ষা


এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি





এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে খুব সুন্দর একটি ভিডিও টিউটোরিয়াল শেয়ার করা হলো।পরীক্ষা প্রস্তুতি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।প্রস্তুতি ভালো না থাকলে পরীক্ষাও ভালোভাবে দেয়া সম্ভব নয়।এর মাঝে পরীক্ষার আগের রাতের প্রস্তুতি এবং পরীক্ষার আগে করণীয় বিষয়গুলো বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ।পরীক্ষায় ভাল করার উপায় কি সে সম্পর্কে জানতে অনেক পরীক্ষার্থীই আগ্রহী।আশা করি ভিডিওটি দেখলে এইচএসসি পরীক্ষা প্রস্তুতি আরো সুন্দর হবে।

এইচএসসি ২০১৯ পরীক্ষার্থী বন্ধুরা এইচএসসি পরীক্ষার রুটিন 2019 যথাসময়ে পেয়ে যাবে কিন্তু পরীক্ষার প্রস্তুতি রুটিনের অপেক্ষায় থেমে রাখার সুযোগ নেই।এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য নিচের গাইডলাইনগুলো ফলো করলে অনেক উপকার হবে।
  • এইচএসসি বাংলা ১ম পত্র
  • এইচএসসি বাংলা ২য় পত্র
  • এইচএসসি ইংরেজি ২য় পত্র
  • এইচএসসি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি
  • এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ১ম পত্র
  • এইচএসসি পদার্থবিজ্ঞান ২য় পত্র
  • এইচএসসি রসায়ন ১ম পত্র
  • এইচএসসি রসায়ন ২য় পত্র
  • এইচএসসি জীববিজ্ঞান ১ম পত্র
  • এইচএসসি জীববিজ্ঞান ২য় পত্র
  • এইচএসসি গণিত ১ম পত্র
  • এইচএসসি গণিত ২য় পত্র
  • এইচএসসি ব্যাবস্থাপনা ১ম পত্র
  • এইচএসসি ব্যাবস্থাপনা ২য় পত্র
  • এইচএসসি অর্থায়ন ১ম পত্র
  • এইচএসসি অর্থায়ন ২য় পত্র
  • এইচএসসি হিসাববিজ্ঞান ১ম পত্র
  • এইচএসসি হিসাববিজ্ঞান ২য় পত্র
  • এইচএসসি অর্থনীতি ১ম পত্র
  • এইচএসসি অর্থনীতি ২য় পত্র
  • এইচএসসি বিপণন ১ম পত্র
  • এইচএসসি বিপণন ২য় পত্র
এইচএসসি ২০১৯ এর সকল বিষয়ের প্রস্তুতির জন্য ভিজিট করুন রবি 10 minute school

এইচএসসি ২০১৯ প্রবেশপত্র

এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র বিতরণ শুরু হলে সকল পরীক্ষার্থীকে  নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে তা সংগ্রহ করতে হবে।এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র বিতরণ শুরু হলে দ্রুত তা পাঠকদের জানিয়ে দেয়া হবে।




April 18, 2019

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সংশোধিত | ডাউনলোড করুন

ডিগ্রী ১ম বর্ষ রুটিন

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই তা প্রকাশ করা হয়েছে সমকাল ব্লগে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ডিগ্রি ১ম বর্ষের ২০১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থীরা অবগত আছেন যে ডিগ্রী ১ম বর্ষের ফরম ফিলাপ 2018 ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে।
অনার্স ৪র্থ বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

অতঃপর প্রকাশিত হয় ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯।ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ডাউনলোড করুন সমকাল ব্লগে থেকে।



ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষা ২০১৮ শুরু হবে ২০/০৪/১৯ তারিখে।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষার রুটিন সময়মতো হাতে পাওয়ার জন্য নিয়মিত পড়ুন সমকাল ব্লগ।ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন 2019 জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইটের নোটিশ বোর্ড (www.nu.ac.bd/recent-news-notice.php) থেকে সরাসরি ডাউনলোড করা যাবে।
মাস্টার্স ফাইনাল রেজাল্ট ২০১৯

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ বিজ্ঞপ্তি

পরীক্ষার্থী বন্ধুরা ইতোমধ্যেই জেনে গেছেন যদিও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ২০১৯ সালে তবুও যেহেতু ডিগ্রী ১ম বর্ষের ফরম ফিলাপ 2018 সালে সম্পন্ন হয়েছে কাজেই এটি ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষা ২০১৮।এবং পরীক্ষার রুটিন হবে ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৮।সুতরাং এটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার রুটিন ২০১৮।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে ২০/০৪/১৯ তারিখ থেকে ০৪/০৫/১৯ তারিখ পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে প্রতিদিন দুপুর ২:০০ থেকে এবং পবিত্র রমজান মাসের জন্য ০৫/০৫/১৯ তারিখ থেকে ২৩/০৫/১৯ তারিখ পর্যন্ত পরীক্ষাগুলো অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৯:০০ থেকে।
ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি

ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ ডাউনলোড





ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন 20119 প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই পিডিএফ ডাউনলোড লিংক দেয়া হয়েছে।ফলে পরীক্ষার্থীগণ সহজেই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে তা ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।সেই সাথে ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ছবি আকারেও এখানে প্রকাশিত হলো।
ডিগ্রী ১ম বর্ষ রুটিন ২০১৯

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সংশোধনের নোটিশ

এদিকে ০৭/০৪/১৯ তারিখে ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার সময়সূচি আংশিক পরিবর্তন করে একটি নোটিশ জারি করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ।



তবে এতে পরীক্ষা শুরুর তারিখের কোনো পরিবর্তন ঘটেনি।শুধু কয়েকটি পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তন করা হয়েছে।নোটিশটি নিচে দেয়া হলো।
ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন সংশোধন নোটিশ

সংশোধিত ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯

পরীক্ষার্থীদের সুবিধার জন্য সংশোধিত সর্বশেষ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সমকাল ব্লগে প্রকাশিত হলো।
ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সংশোধন
ডিগ্রী ১ম বর্ষের পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ সংশোধন
সরাসরি সংশোধিত রুটিনের পিডিএফ ডাউনলোড লিংক

ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন ২০১৯ নতুন নোটিশ

এদিকে ১৭ এপ্রিল ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন সংক্রান্ত নতুন একটি নোটিশ প্রকাশ করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।যদিও এতে নতুন করে কোনো কিছুর পরিবর্তন করা হয়নি তবুও নোটিশটি নিচে প্রকাশ করা হলো।
ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার রুটিন নতুন নোটিশ

ডিগ্রী ১ম বর্ষের ফরম ফিলাপ 2018

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী ১ম বর্ষের পাস ও সার্টিফিকেট কোর্সের ফরম ফিলাপ শুরু হয় ২৬/১২/১৮ তারিখ থেকে এবং তা শেষ হয় ০৩/০২/১৯ তারিখে।ফরম ফিলাপের নোটিশটি ছিলো নিম্নরূপ:
ডিগ্রী ১ম বর্ষের ফরম ফিলাপ 2018

ডিগ্রী ১ম বর্ষের ফরম ফিলাপ 2018 সময় বর্ধিতকরণ

অতঃপর ডিগ্রী পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স ১ম বর্ষ পরীক্ষা ২০১৮ এর ফরম ফিলাপের সময় বৃদ্ধি করা হয়।বর্ধিত সময় অনুযায়ী ছাত্রদের অনলাইনে ফরম পূরনের সময় দেয়া হয় ০৬/০২/১৯ থেকে ২০/০২/১৯ পর্যন্ত।ছাত্রদের ফরমের প্রিন্ট কপি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমাদানের শেষ তারিখ ছিলো ২৪/০২/১৯।ফরম ফিলাপের সময় বর্ধিতকরণের নোটিশটি ছিলো নিম্নরূপঃ
ডিগ্রী ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফরম পূরণ 2018




Sunday, 14 April 2019

April 14, 2019

সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯ | বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়োগ

সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯

সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯।বাংলাদেশ সেনাবাহিনী একটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান।অনেক তরুনের স্বপ্ন থাকে সেনাবাহিনীতে চাকরি করার।তাই সেনাবাহিনী নিয়োগ এর জন্য অনেকেই উদগ্রীব থাকেন।তবে সবসময় সেনাবাহিনী নতুন নিয়োগ পাওয়া যায়না।সেনাবাহিনীর সার্কুলার ২০১৯ এর জন্য যারা অপেক্ষা করছেন তাদের জন্য সুখবর হলো আলোচ্য লেখাটিতে আমরা বিশদভাবে জানবো সেনাবাহিনী নিয়োগ 2019।সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯, পুলিশ নিয়োগ ২০১৯, বিমান বাহিনী নিয়োগ ২০১৯, বাংলাদেশ রেলওয়ে নিয়োগ ২০১৯ সম্পর্কে সবসময় সর্বশেষ আপডেট জানতে নিয়মিত পড়ুন সমকাল ব্লগ।

সৈনিক পদে নিয়োগ ২০১৯




সৈনিক পদে নিয়োগ ২০১৯ এর জন্য সেনাবাহিনী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছিলো অনেক পূর্বেই।সেনাবাহিনীর চাকরির খবর প্রকাশিত হওয়ার পরে আবেদন প্রক্রিয়া চলে ১লা ডিসেম্বর ২০১৮ থেকে ৩১শে ডিসেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত।এসএমএসের মাধ্যমে সঠিকভাবে যারা আবেদন করেছেন তারা সৈনিক পদে  নির্ধারিত সেনানিবাসে ২০শে জানুয়ারি থেকে ১৩ই জুন পর্যন্ত পরীক্ষা দিতে পারবেন।এসএমএসের মাধ্যমে আবেদনের সময়সীমা ইতোমধ্যেই শেষ হয়ে গেছে।

বর্তমানে পুনরায় সৈনিক পদে (ট্রেড ২) সেনাবাহিনীতে নতুন নিয়োগ শুরু হয়েছে।সৈনিক পদে সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯ পুনরায় শুরু হওয়ায় তা সমকাল ব্লগের পাঠকদের সময়মতো জানিয়ে দেয়া হলো।

আগামী ২২ এপ্রিল ২০১৯ হতে ৩০ এপ্রিল ২০১৯ তারিখ পর্যন্ত সৈনিক পদে নিয়োগ ২০১৯ বিজ্ঞপ্তির ক্রমিক নং ৪ এ উল্লেখিত নির্ধারিত স্থান, তারিখ, সময় ও জেলা অনুযায়ী বিভিন্ন আর্মস/সার্ভিসেস সেন্টার সমূহে সৈনিক পদে(ট্রেড-২ পেশায়) লোক ভর্তি কার্যক্রমে অনুষ্ঠিত হবে, বিস্তারিত বিজ্ঞাপনে দেখুন।

পদের নাম: বিশেষ পেশা (ট্রেড-২)

আবেদনকারী: পুরুষ ও মহিলা

ট্রেড-২ এর পেশা সমূহ: কুক (মেস), কুক (ইউনিট), কুক (হাসপাতাল), ইকুইপমেন্ট এন্ড বুট রিপেয়ারার (ইএন্ডবিআর), বাদক, ব্রসব্যান্ড, কার্পেন্টার, পেইন্টার ডেকোরেটর(পিডি), পেইন্টার, কাটিং এন্ড জয়েনিং(সিএন্ডজে) এবং টেইলার।

শিক্ষাগত যোগ্যতা: এসএসসি পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ২.৫০ থাকতে হবে।তবে পিডি এবং পেইন্টার পেশার ক্ষেত্রে অবশ্যই বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ হতে হবে।

বয়স: ২১ জুলাই ২০১৯ তারিখে ১৭ থেকে ২০ বছরের মধ্যে হতে হবে।এফিডেফিট গ্রহনযোগ্য নয়।

শারীরিক যোগ্যতা : পুরুষ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ১.৬৮ মিটার (৫ ফুট ৬ ইঞ্চি), ওজন ৪৯.৯০ কেজি (১১০ পাউন্ড), বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ০.৭৬ মিটার (৩০ ইঞ্চি), প্রসারণ অবস্থায় ০.৮১ মিটার (৩২ ইঞ্চি) থাকতে হবে। মহিলা প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ১.৬০ মিটার (৫ ফুট ৩ ইঞ্চি), ওজন ৪৭ কেজি (১০৩ পাউন্ড), বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ০.৭১ মিটার (২৮ ইঞ্চি), প্রসারণ অবস্থায় ০.৭৬ মিটার (৩০ ইঞ্চি) থাকতে হবে।

বৈবাহিক অবস্থা: অবিবাহিত হতে হবে (তালাকপ্রাপ্ত নয়)।

সাঁতার: সাঁতার জানা অত্যাবশ্যক(ন্যুনতম ৫০ মিটার)

সেনাবাহিনী চাকুরীর সুযোগ-সুবিধা : নির্ধারিত স্কেলে বেতন, ভাতা এবং পেনশনসহ বিনামূল্যে আহার ও বাসস্থান, নিজ, পরিবারবর্গ এবং পিতা-মাতা/শ্বশুর-শ্বাশুরীর জন্য সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসার সুবিধা, বিনামূল্যে সরকারী পোশাক পরিচ্ছদ, নিজ ও পরিবারবর্গের জন্য ভর্তুকি মূল্যে রেশন প্রদান, সেনাবাহিনী কর্তৃক পরিচালিত বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সন্তানদের জন্য যোগ্যতা সাপেক্ষে উচ্চ শিক্ষার সুযোগ।

নির্বাচন পদ্ধতি : লিখিত পরীক্ষা (বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান),শারীরিক পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্য প্রার্থী নির্বাচন করা হবে।

ভর্তির সময় অবশ্যই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত সনদপত্র/ছবি/পে-অর্ডার/ব্যাংক ড্রাফট/লেখার সামগ্রী সঙ্গে আনতে হবে।
সৈনিক পদে নিয়োগ ২০১৯

এদিকে ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখ হতে ২৭শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ তারিখ পর্যন্ত মিনিস্ট্রি অব ডিফেন্স কনস্ট্যাবিউলারি (এমওডিসি) সেন্টার এন্ড রেকর্ডস রাজেন্দ্রপুর সেনানিবাস কতৃক নির্ধারিত জেলা কোটা অনুযায়ী এমওডিসিতে সৈনিক পদে লোক ভর্তি করা হবে।
যোগ্যতা :
বয়স : ১০ মার্চ ২০১৯ তারিখে ১৭ হতে ২৫ বছর
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এসএসসি / সমমান পরীক্ষায় ন্যুনতম জিপিএ ২ পেয়ে উত্তীর্ণ।
আরও বিস্তারিত জানতে সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯ সার্কুলার ডাউনলোড করুন https://www.army.mil.bd ওয়েবসাইট থেকে

সেনাবাহিনী বেসামরিক নিয়োগ ২০১৯




বাংলাদেশ সেনাবাহিনী বেসামরিক নিয়োগ ২০১৯ প্রকাশিত হয়েছে। বিভিন্ন পদে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন মিলিটারি ইন্জিনিয়ার সার্ভিসেস এমইএস এ নিয়োগ দেবে সেনাবাহিনী।
  • ১১টি পদে মোট ৯৭ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে
  • আবেদনকারীর শিক্ষাগত যোগ্যতা পদ ভেদে অক্ষরজ্ঞান থেকে স্নাতক পর্যন্ত
  • ১৪তম থেকে ২০তম গ্রেডে নিয়োগ দেয়া হবে
  • আবেদনকারীর বয়স ১৩ই মার্চ ২০১৯ তারিখে ১৮ থেকে ২০ বছরের মধ্যে হতে হবে
  • অনলাইনে আবেদনপত্র এবং ফী জমাদানের শুরুর তারিখ ২০শে ফেব্রুয়ারি এবং শেষ তারিখ ১৩ই মার্চ ২০১৯
  • আবেদন করতে হবে http://mes.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে
  • বিস্তারিত তথ্য রয়েছে নিচের সার্কুলারে
সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯


নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী বোর্ড।৩৭টি জেলায় সশস্ত্র বাহিনী বোর্ড অফিসে দুজন করে লোক নিয়োগ দেয়া হবে।
করণিক (ইউডিএ) গ্রেড-১৪ বেতন ১০২০০-২৪৬৮০/=
অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক গ্রেড-১৬ বেতন ৯৩০০-২২৪৯০/=
আবেদনের শেষ তারিখ ২৪শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯
আবেদনের যোগ্যতা,আবেদনের নিয়ম কানুনসহ
বিস্তারিত জানতে,নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ডাউনলোড করতে এবং নির্দিষ্ট আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে ভিজিট করুন http://basb.gov.bd/Available_Jobs.php?Q=inDHAKA

সেনাবাহিনীর অফিসার পদে নিয়োগ



বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অফিসার নিয়োগ ২০১৯ চলছে।
কোর্স : ৮৩ তম বিএমএ দীর্ঘমেয়াদী কোর্স।
সেনাবাহিনীর অফিসার পদে নিয়োগ পেতে হলে ন্যুনতম কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন হয়।নিম্নে বিষয়গুলো বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।
  • শারীরিক যোগ্যতা (ন্যুনতম):
  • শারীরিক যোগ্যতা পুরুষ মহিলা
    উচ্চতা ৫'৪" ৫'২"
    ওজন ৫০ কেজি ৪৭ কেজি
    বুক স্বাভাবিক ৩০'
    প্রসারণ ৩২'
    স্বাভাবিক ২৮'
    প্রসারণ ৩০'
  • শিক্ষাগত যোগ্যতা (ন্যুনতম): মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় যে কোনো একটিতে জিপিএ ৫ এবং অপরটিতে ৪.৫০।
  • বৈবাহিক অবস্থা : অবিবাহিত।
  • জাতীয়তা : জন্মসূত্রে বাংলাদেশী নাগরিক।
  • ডেডলাইন : ২৩শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯।

অনলাইনে আবেদন করতে ভিজিট করুন https://joinbangladesharmy.army.mil.bd





Friday, 12 April 2019

April 12, 2019

পুলিশ নিয়োগ ২০১৯ শুরু হয়েছে | পুলিশ নিয়োগ সার্কুলার ২০১৯ দেখুন

পুলিশের চাকরির খবর

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে চাকুরি করতে চান?পুলিশ নিয়োগ সার্কুলার ২০১৯ খুঁজছেন?সেনাবাহিনী নিয়োগ ২০১৯,পুলিশ নিয়োগ, বিমান বাহিনী নিয়োগ ২০১৯,পুলিশ নিয়োগ ২০১৯, বাংলাদেশ রেলওয়ে নিয়োগ ২০১৯, চাকরির খবর পুলিশ,নতুন পুলিশ নিয়োগ ২০১৯ সহ সকল গুরুত্বপূর্ণ সরকারি, বেসরকারি চাকরির নিয়োগ সম্পর্কে সর্বশেষ খবর জানতে নিয়মিত পড়ুন সমকাল ব্লগ।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পুলিশ।পুলিশে চাকরি অনেক চাকরি প্রার্থীর কাছেই ফেভারিট।যারা পুলিশের বিভিন্ন পদে চাকরি করতে আগ্রহী তাঁরা বাংলাদেশ পুলিশ নিয়োগ এর জন্য অপেক্ষায় আছেন।তারা জানতে চান পুলিশ নিয়োগ কবে,পুলিশ নিয়োগ কবে 2019।এখানে আপনি পাবেন পুলিশ নিয়োগ 2019 এর সকল খবর।




পুলিশ নিয়োগ ২০১৯ শুরু হয়েছে।বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়েছে সমকাল ব্লগে।ডাউনলোড করুন পুলিশ সার্কুলার,পুলিশের নতুন নিয়োগের খবর পড়ুন।পুলিশের চাকরির খবর জানতে সমকাল ব্লগের সাথেই থাকুন।

পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯,পুলিশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯

২০১৯ সালের পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি এখনো প্রকাশিত হয়নি।তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছিলেন ২০১৯ সালের মধ্যে পঞ্চাশ হাজার পুলিশ নিয়োগ করা হবে।কাজেই পুলিশ নিয়োগ সার্কুলার ২০১৯ প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই বিস্তারিত জানিয়ে দেয়া হবে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্তব্য করেছেন আগামী ৫ বছরে আরো ৫০ হাজার পুলিশ নিয়োগ দেয়া হবে।বর্তমানে বাংলাদেশে পুলিশ রয়েছে ২ লাখ ১২ হাজার।

আরও জানা গেছে পুলিশ বাহিনী চায় আগামী ৫ বছরে আরো ১ লক্ষ জনবল নিয়োগ দিতে।শীঘ্রই তারা সরকারের কাছে এ সংক্রান্ত দাবি উপস্থাপন করতে যাচ্ছে।

এসআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯





২০১৯ সালের এসআই নিয়োগ শুরু হয়েছে।সম্প্রতি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে ২০১৯ সালের বহিরাগত ক্যাডেট ‘সাব-ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র)’ পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।বাংলাদেশের যে কোনো অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয় হতে ন্যুনতম স্নাতক পাশ ও কম্পিউটারে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন প্রার্থীগণ পুলিশের বহিরাগত ক্যাডেট ‘সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) পদে নিয়োগের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

প্রাথমিকভাবে শারীরিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর প্রার্থীদেরকে আবেদন ফরম পূরণ করে ৭ মের মধ্যে নিজ নিজ রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে তা পৌঁছাতে হবে।আগামী ২৮, ২৯ ও ৩০ এপ্রিল সকাল ৯টায় পুলিশের আটটি বিভাগীয় রেঞ্জে শারীরিক মাপ ও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

শারীরিক পরীক্ষার সময় প্রার্থীদের যা যা সাথে আনতে হবে:


  • শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদের মূল কপি
  • সর্বশেষ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তৃক প্রদত্ত চারিত্রিক সনদের মূল কপি
  • জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি
  • নাগরিকত্ব সনদের মূল কপি
  • সত্যায়িত ৩ কপি সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি এবং
  • বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় অন্যান্য কাগজপত্র।


আবেদনের যোগ্যতা:

সাব-ইন্সপেক্টর (এস আই) পদে আবেদন করার জন্য আবেদনকারীকে ন্যূনতম স্নাতক পাস হতে হবে।পাশাপাশি কম্পিউটারে অভিজ্ঞ হতে হবে।প্রার্থীদের অবশ্যই বাংলাদেশের নাগরিক এবং অবিবাহিত হতে হবে।
আবেদনের বয়স:
সাধারণ প্রার্থীদের বয়স ১ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে ১৯ থেকে ২৭ বছরের মধ্যে এবং মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের ক্ষেত্রে একই তারিখে বয়স ১৯ থেকে ৩২ বছরের মধ্যে হতে হবে।

শারীরিক যোগ্যতা:

এস আই পদে আবেদনের জন্য পুরুষ প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি, বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় ৩০ ইঞ্চি ও সম্প্রসারিত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি হতে হবে।আর নারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উচ্চতা কমপক্ষে ৫ ফুট ২ ইঞ্চি হতে হবে।

পরীক্ষার সময়:

উল্লেখিত তারিখে অনুষ্ঠিত শারীরিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরকে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। ১৬ জুন ২০১৯ তারিখ সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত ইংরেজি, বাংলা রচনা ও কম্পোজিশন বিষয়ে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।১৭ জুন ২০১৯ তারিখ সকাল ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত সাধারণ জ্ঞান ও পাটিগণিত বিষয়ে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।এরপর ১৮ জুন ২০১৯ তারিখ সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ২৫ নম্বরের মনস্তত্ত্ব পরীক্ষা নেয়া হবে।পরীক্ষার স্থান প্রার্থীদের পরবর্তী সময়ে জানিয়ে দেবে কতৃপক্ষ।

আবেদনপত্র প্রেরণ:

শারীরিক যোগ্যতার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদেরকে সংশ্লিষ্ট রেঞ্জের ডিআইজির কাছ থেকে ওই দিনই তিনশত টাকা নগদ মূল্যে আবেদনপত্র ক্রয় করতে হবে।এরপর প্রার্থীদেরকে বাংলাদেশ পুলিশের অনুকূলে যেকোনো রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকে পরীক্ষার ফি বাবদ ৩০০ টাকা ১-২২১১-০০০০-২০৩১ অথবা ১২২০২০১১৩৫৯৫৪১৪২২৩২৬ নম্বর কোডে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে জমা দিয়ে চালানের মূল কপিসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আবেদন পত্রের সাথে সংযুক্ত করে দিতে হবে।আবেদন ফরম সঠিকভাবে পূরণ করে ৭ মে ২০১৯ তারিখের মধ্যে নিজ নিজ রেঞ্জ ডিআইজির কার্যালয়ে জমা দিতে হবে।

আরো বিস্তারিত জানার জন্য বিজ্ঞপ্তিটি পড়ুন।
এসআই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯

বিজ্ঞপ্তিটি সরাসরি ডাউনলোড করতে পারেন বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর ওয়েবসাইট থেকে।

হাইওয়ে পুলিশ নিয়োগ ২০১৯

৬টি পদে ১৬ জনকে নিয়োগ দেবে উত্তরা হাইওয়ে পুলিশ।আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।




পদের নাম: সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ০১ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি/সমমান
দক্ষতা: কম্পিউটার টাইপিংয়ে সর্বনিম্ন গতি বাংলায় প্রতি মিনিটে ২৫ অক্ষর,ইংরেজিতে ৩০।
বেতন গ্রেড ১৩ : ১১,০০০-২৬,৫৯০ টাকা

পদের নাম: হিসাবরক্ষক
পদসংখ্যা: ০১ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি/সমমান
বেতন গ্রেড ১৪ : ১০,২০০-২৪,৬৮০ টাকা

পদের নাম: ক্যাশিয়ার
পদসংখ্যা: ০২ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি/সমমান
বেতন গ্রেড ১৬ : ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা

পদের নাম: অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদসংখ্যা: ০৬ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি/সমমান
দক্ষতা: কম্পিউটার টাইপিংয়ে সর্বনিম্ন গতি বাংলায় প্রতি মিনিটে ২০ অক্ষর,ইংরেজিতে ২০।
বেতন গ্রেড ১৬ : ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা

পদের নাম: অফিস সহায়ক
পদসংখ্যা: ০১ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ৮ম শ্রেণি
বেতন গ্রেড ২০ : ৮,২৫০-২০,০১০ টাকা

পদের নাম: পরিচ্ছন্নতাকর্মী
পদসংখ্যা: ০৫ জন
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ৮ম শ্রেণি
বেতন গ্রেড ২০ : ৮,২৫০-২০,০১০ টাক

নারী-পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।

বয়স: ০১ মার্চ ২০১৯ তারিখে ১৮-৩০ বছর।বিশেষ ক্ষেত্রে ৩২ বছর

আবেদনপত্র সংগ্রহ: আগ্রহী প্রার্থীরা www.police.gov.bd অথবা
www.highwaypolice.gov.bd থেকে আবেদন পত্র সংগ্রহ করতে পারবেন।আবেদন পত্র অবশ্যই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডাকযোগে পৌঁছাতে হবে।

আবেদনের ঠিকানা: পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও প্ল্যানিং), বাংলাদেশ পুলিশ, হাইওয়ে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, উত্তরা, ঢাকা।

আবেদনের শেষ সময়: ৩০ এপ্রিল ২০১৯

বিজ্ঞপ্তিটি নিচে দেয়া হলো।আবেদন করার আগে ভালোভাবে সার্কুলার দেখে নিন।
হাইওয়ে পুলিশ নিয়োগ ২০১৯
হাইওয়ে পুলিশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০১৯

পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি





বর্তমানে যেসকল জেলার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে এখানে সে সম্পর্কে তথ্যগুলো জানিয়ে দেয়া হবে।আগ্রহীরা আবেদন করতে পারবেন।

পুলিশ প্রধানের নাম

পুলিশে চাকরি করতে ইচ্ছুক অথচ বর্তমান পুলিশ প্রধানের নাম জানবেন না তাও কি হয়?বাংলাদেশের বর্তমান পুলিশ প্রধান বা পুলিশের আইজির নাম ড. জাবেদ পাটোয়ারী।