Breaking

Translate

Friday, 5 October 2018

ntrca সম্পর্কিত ১৬৬টি রিটের রায়ের ৭টি পয়েন্টের অনুবাদসহ ব্যাখ্যা।

মতামতটি লিখেছেন এস এম আমজাদ হোসেন।

ntrca সর্বশেষ খবর

ntrca এর দুর্নীতি ও হযবরল নিয়োগ প্রক্রিয়ার বিপক্ষে ১৬৬টি রিট দাখিল হয়েছিল ২০১৬ সালের ৯ই অক্টোবরের পর থেকে। গত ১৪/১২/২০১৭ ইং তারিখে এ ১৬৬ টি রিটের রায় দেন মহামান্য আদালত ৭টি পয়েন্টে বিভক্ত করে।

১ম পয়েন্টটিতে বলেছে

The NTRCA will issued certificate to the applicants for appointment as teachers for the Non-government Educational Institution in accordance with law without fixing any validity period of the certificate and the persons who have got certificate in the meantime for the same purpose shall remain valid until their appointment as the teachers for the Non-government Educational Institution subject to availability of the post.




ভাবানুবাদঃ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের উদ্দেশ্যে  ntrca কর্তৃক ইস্যুকৃত সনদের মেয়াদ থাকবে সনদধারীদের নিয়োগের পূর্ব পর্যন্ত,শুন্য পদ থাকা সাপেক্ষে।

মন্তব্যঃ
এখানে এনটিআরসিএ কতৃক ইস্যুকৃত নিবন্ধন সনদের কোনো মেয়াদ নির্ধারণ করতে নিষেধ করেছে আদালত। যতদিন পর্যন্ত না নিয়োগ হবে ততদিন পর্যন্তই নিয়োগের জন্য আবেদন করার সুযোগ দিতে হবে নিবন্ধনকারীদের।

এবার আসি ২নং পয়েন্টে

The NTRCA is directed to prepare a combined National merit list for the purpose of appointment of the teacher to the non-government Educational Institution within 90 days from the date of receipt of this order and publish the same in the official website of the NTRCA,  so that the applicants can see the merit list, as well as, their position there in.

ভাবানুবাদঃ বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের উদ্দেশ্যে রায়ের কপি পাবার ৯০ দিনের মধ্যে সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করতে হবে এবং একই সময়ে তা তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে হবে যাতে প্রার্থীগণ তাদের মেধার অবস্থান বুঝতে পারেন।

কিছু কথাঃ

যেহেতু নিয়োগের উদ্দেশ্যে সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়েছে সেহেতু কোন ভাবেই সনদধারীদেরকে বয়স লিমিট করে তালিকা থেকে বাদ দিতে পারবে না। তবে কেন ntrca এত নাটক করছে? আসলে তাদের উদ্দেশ্য কী? তারা কি চায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষকের অভাবে ধ্বংস হয়ে যাক?

৩নং পয়েন্টঃ

There would be only one merit list and no merit list to be prepare by the NTRCA for the Upazila, District or Division basis and the recommendation for appointment of the teacher for Non-government Educational Institutions would be given from the combined National Merit list. 

ভাবানুবাদঃ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের লক্ষ্যে শুধু মাত্র একটি সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা হবে, উপজেলা, জেলা বা বিভাগীয় মেধাতালিকা গন্য করা যাবে না। এবং সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা হতে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দিতে হবে।

কিছু কথাঃ

যেহেতু উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় কোটা অবৈধ সেহেতু ২০১৬ সালে কেন উপজেলা জেলা কোটা করে নিয়োগ দিয়ে হাজার হাজার মেধাবীকে বঞ্চিত করা হয়েছে? কেন উপজেলার বাহিরের প্রার্থীদের কাছ থেকে আবেদনের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছিল?




তখন যদি উপজেলা কোটা স্থাপন না করা হত তবে শত শত নিবন্ধনধারী নিয়োগ পেতেন, তাতে নিবন্ধনধারীদের জীবন থেকে দুটি বছর চলে যেত না। এখন আবার শিক্ষক নিয়োগে বয়স নির্ধারণ করে হাজার হাজার নিবন্ধনকারীর মৌলিক অধিকার কেড়ে নেবার চক্রান্ত করা হচ্ছে। এর কি কোনো প্রতিকার হবে না?

৪ নং পয়েন্টঃ

The NTRCA is directed to update the combined merit list once every year, once the latest intake is done.

ভাবানুবাদঃ

ntrca এর প্রতি নির্দেশিত হল প্রতি বছর সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা আপডেট করতে হবে , একবার সর্বশেষ নিয়োগ দেবার পর। 

কিছু কথাঃ

নিয়োগ দেবার পর যাদের নিয়োগ বাকী থাকে তাদেরকে নতুন করে আপডেট করা হউক আপত্তি নাই কিন্তু প্রতিবছর শুধু পরীক্ষা নিয়ে নিয়োগযোগ্য তালিকা বর্ধিত করার কোনো মানে হয় না।

৫নং পয়েন্টঃ

The NTRCA is directed to propose/ recommend the name of the writ petitioners and the other prospective applicants pursuant to their certificates issued to them as per combined national merit list for the appointment in the vacant post of the Non-government Educational Institution. However,  after appointment the Education Ministry or the Education Board on the application of the appointed teachers may allow the interchange of the teachers to their respective native school. 

ভাবানুবাদঃ

রিটকারীদের নাম এবং অন্যান্য প্রত্যাশিত আবেদনকারীদেরকে তাদের ইস্যুকৃত সনদ অনুযায়ী সমন্বিত জাতীয় মেধাতালিকা অনুসারে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শুন্য পদে নিয়োগ দেবার নির্দেশ দিয়েছে আদালত, ntrca এর প্রতি।
যাইহোক, নিয়োগের পর শিক্ষামন্ত্রনালয় বা শিক্ষাবোর্ড নিয়োগকৃত শিক্ষকদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাদের নিকটতম স্কুলে বদলির অনুমোদন দিতে পারবে।




কিছু কথাঃ

যেহেতু ৫নং পয়েন্টে নিয়োগের আদেশ দিয়েছেন কিন্তু বয়সের কথা কিছুই বলেন নি সেহেতু বয়স নির্ধারন সনদধারীদের জন্য কোনোভাবেই প্রযোজ্য হতে পারে না।

৬নং পয়েন্টঃ

The managing committee or the governing body, as the case may be,  if does not implement the recommendation of the NTRCA within 60 days from the date of receipt of such recommendation for the purpose of appointment of the teachers in the non-government Educational Institution,  the concern board shall dissolve the managing committee or the governing body of the concern Educational Institution and the board shall take lawful steps to run the affairs of the concerned educational Institute. 

ভাবানুবাদঃ ম্যানেজিং কমিটি বা গভর্নিং বডির প্রতি শিক্ষক নিয়োগের সুপারিশ প্রাপ্ত হলে সুপারিশ প্রাপ্তির ৬০ দিনের মধ্যে নিয়োগ না দিলে আইনগতভাবে ব্যবস্থাপনা কমিটি বাতিল হবে এবং শিক্ষা বোর্ড শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালানোর ব্যবস্থা নিবেন।

মন্তব্যঃ

এটি একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত।  এ সিদ্ধান্তের ফলে প্রতিষ্ঠান প্রধানরা ঘুষ বানিজ্য করতে পারবে না।

৭নং পয়েন্টঃ

In the entry process of the job since no age limit has been fixed in any of the provisions of law,  so we are of the view that the Government should take an immediate appropriate initiative for fixing the age limit of the applicants for the purpose of appointment of the teachers to the Non-government educational Institution. 

ভাবানুবাদঃ 

আইনের কোনো বিধানে চাকুরিতে প্রথম প্রবেশে বয়স লিমিট করা নাই, তাই আমরা মনে করি যে, নিয়োগের উদ্দেশ্যে আবেদনকারীদের বয়সসীমা নির্ধারনের জন্য সরকারের অবিলম্বে যথাযথ উদ্যোগ নেয়া উচিৎ।

কিছু কথাঃ

যেহেতু কোর্ট একদিকে সনদের মেয়াদ চাকুরি না হওয়া পর্যন্ত বলেছে আবার এন্ট্রি প্রসেসে বয়স নির্ধারণ করার কথাও বলেছে, সেহেতু যারা ইতিমধ্যে সনদ অর্জন করেছে তাদের ক্ষেত্রে বয়স লিমিট করা যাবে না। যদি তাদের ক্ষেত্রে বয়স লিমিট করা হয় তবে ১ নং এর সাথে ৭নং সাংঘর্ষিক হবে।





যদি বয়স নতুন নিবন্ধন পরীক্ষার জন্য করা হয় তবে রায় সাংঘর্ষিক হবে না। আদালত কোনোদিনই সাংঘর্ষিক রায় দেন না। তাই বুঝে নিতে হবে বয়স সনদধারীদের জন্য নয়, যারা নিয়োগের উদ্দেশ্যে নিবন্ধন পরিক্ষায় অংশগ্রহন করার জন্য আবেদন করবেন তাদের জন্য কোর্ট বয়স লিমিট করার কথা বলেছেন।

অথচ নিবন্ধন সনদধারীদের উপর বয়স চাপিয়ে দেবার হীন চেষ্টা করা হচ্ছে।

তাছাড়া সনদধারীগণ নিয়োগ যোগ্য সনদ পেয়ে নিয়োগ যোগ্য জাতীয় মেধাতালিকায় স্থান পেয়েছে। তারা প্রথম প্রবেশ অতিক্রম করেই সনদ অর্জন করেছেন। এখন নতুন করে সনদধারীগণ আর কোনো পরিক্ষা দিবে না। তাই তাদের বয়স লিমিট করার প্রশ্নই আসে না।

উদাহরণ হিসেবে একটি কথা বলা যাই, 

সরকারী চাকুরিতে প্রবেশের বয়স ৩০ বছর। কোনো প্রার্থী যদি  ২৯ বছর ১১মাস ২৯ দিনে আবেদন করে এবং পরিক্ষা দিয়ে যোগ্য প্রমানিত হতে হতে তার বয়স যদি ৩৪ বছর হয়ে যায় এবং সকল পরিক্ষায় যোগ্যতা প্রমান দিয়ে পাস করে তখন তাকে সরকার নিয়োগ দিতে বাধ্য যদিও তার বয়স ৩৪ বছর। 

তদ্রুপভাবে নিবন্ধন সনদধারীগণ সকল ধরনের যোগ্যতার পরিক্ষা দিয়ে নিয়োগ যোগ্য সনদ অর্জন করেছেন, নিয়োগ যোগ্য সনদ অর্জন করার পরে কিভাবে নিয়োগ না দিয়ে পারবে ntrca?
আইন  ও রায় অনুযায়ী কোনোভাবেই সনদধারীদের উপর বয়স চাপিয়ে দিতে পারবে না। আর যদিও  চাপিয়ে দিতে চায় তবে তা উপজেলা কোটার মত নিমিষেই শেষ হয়ে যাবে।





এস এম আমজাদ হোসেন
আহ্বায়ক ও সমন্বয়কারী 
১-১২তম এনটিআরসিএ নিবন্ধনকারীদের অধিকার আদায় কমিটি এবং 
১-১৩তম বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন সনদ রক্ষা কমিটি

বি : দ্র : লেখাটি লেখকের একান্তই নিজস্ব মতামত। এর জন্য সমকাল ডট ইনফো কতৃপক্ষ দায়ী নয়। কোনো প্রশ্ন বা অভিযোগ থাকলে সরাসরি লেখকের সাথে যোগাযোগ করুন। লেখকের ইমেইল : smamzadhossain1@gmail.com

No comments:

Post a Comment