Breaking

Translate

Saturday, 14 April 2018

ধানের কারেন্ট পোকা বা ধানের বাদামি শোষক পোকা দমনে কার্যকর কীটনাশকের গ্রুপ।

ধানের কারেন্ট পোকা দমনে সেমকো কোম্পানির সমাধান।



কৃষকরা অনেক পরিশ্রম করে ধান চাষ করে। শুধু পরিশ্রম নয় সার, কীটনাশক, শ্রমিকের পারিশ্রমিক ইত্যাদি বাবদ বর্তমানে প্রতি বিঘা জমিতে ধান চাষে কমপক্ষে চার পাঁচ হাজার টাকা খরচ হয়ে যায়। এতো কিছু করেও কাঙ্খিত ফসল ঘরে উঠবে এমন নিশ্চয়তা নাই। কখনও বন্যা,খরা,অতিবৃষ্টি, অনাবৃষ্টি,শিলাবৃষ্টি ইত্যাদি প্রাকৃতিক দুর্যোগ আবার কখনও ফসলে রোগবালাই, পোকামাকড়ের আক্রমণে দিশেহারা কৃষক বিপর্যস্ত হয়ে যায়।

ক্ষতিকর যতো ধানের পোকা রয়েছে এরমধ্যে শোষক পোকা, বাদামি গাছফড়িংয়ের মতো মারাত্মক বিপদজনক আর কিছু নেই। অথচ অতি ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র পোকা। কিন্তু অতি দ্রুত বংশবৃদ্ধি করে আর ঝাঁকে ঝাঁকে আক্রমণ করে ধানের জমিতে। এরা পঙ্গপাল বা ধানের কারেন্ট পোকা নামেও পরিচিত। এরা ধানগাছের গোড়ায় অবস্থান করে এবং গাছের রস চুসে খায়। ফলে ধান গাছ প্রথমে হলুদ বর্ণ ধারন করে এবং পরে পুড়ে যাওয়ার মতো বা বাজ পড়ার মতো হয়ে যায়। একে হপারবার্ণ বা ফড়িং পোড়া বলে। রাতারাতি এরা একরের পর একর জমির ফসল নস্ট করে দেয়। চরম ক্ষতিকর এই ধানের পোকা সম্পর্কে বিস্তারিত বিবরণ রয়েছে নিচের ভিডিওচিত্রে। ভিডিওটিতে জানা যাবে ধানের বাদামি শোষক পোকা এর পরিচিতি, ধানের জমিতে এর উপস্থিতি সনাক্তকরন, প্রতিরোধ এবং প্রতিকারের উপায়।
বাদামি গাছফড়িং, হপার বার্ণ, ফড়িং পোড়া, কারেন্ট. পোকা, পঙ্গপাল।
হপার বার্ণ

Watch Video 
তবে এ বিষয়ে আমার লেখার কারণ হলো পেশাগত প্রয়োজনে নিজে স্বচক্ষে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত  হাওড় অঞ্চলের ধানের জমিতে এই বাদামি গাছফড়িং বা ধানের কারেন্ট পোকা আক্রমনের  ভয়াবহ রূপ দেখেছি এবং প্রতিকারের উপায়ও কৃষককে হাতেকলমে দেখিয়েছি,নিজেও দেখেছি।

এই ভয়াবহ ধানের বাদামি শোষক পোকা দমনের জন্য বাজারে বেশকিছু কার্যকর কীটনাশক পাওয়া যায় যার সঠিক ব্যাবহারে এ পোকা দমন করা সম্ভব এবং কাঙ্খিত ফসল ঘরে তোলা সম্ভব।সেসব কীটনাশক কোম্পানির নাম এবং কীটনাশকের গ্রুপ নিয়েও এখানে আলোচনা করা হয়েেছ।





ধানের কারেন্ট পোকা দমনে সরকারি কৃষি অফিস থেকে সবার প্রথমে পরামর্শ দেয়া হয় সেমকো কোম্পানির সপসিন। সপসিন ৭৫ ডব্লিউ পি এমআইপিসি গ্রুপের কীটনাশক। ধানের বাদামি গাছফড়িং দমনে এটি অব্যর্থ কীটনাশক। বাদামি গাছফড়িং দমনে একর প্রতি মাত্রা ৫২০ গ্রাম। ১০ লিটার পানিতে ৫ শতাংশ জমির জন্য ২৬ গ্রাম হারে ব্যাবহার করতে হবে। বাদামি গাছফড়িং ছাড়াও ধানের পামরি পোকা, পাতা মোড়ানো পোকা, চুংগি পোকা, থ্রীপস ও ছাতরা পোকা দমনেও এটি কার্যকরি।
বাদামি গাছফড়িং, কারেন্ট পোকা, পঙ্গপাল। বাদামি গাছফড়িং আক্রমণ, কারেন্ট পোকার আক্রমণ।
বাদামি গাছফড়িংয়ের আক্রমণ 
তবে বর্তমানে ধানের বাদামি শোষক পোকা দমনে আরো নতুন নতুন কীটনাশকের গ্রুপ বাজারে এসেছে যা অত্যন্ত কার্যকর। যেমন সেমকো কোম্পানির পাইমেট্রোজিন গ্রুপের হপারশট। হপারশট ৫০ ডব্লিউ জি এর প্রতি কেজিতে ৫০০ গ্রাম পাইমেট্রোজিন আছে। এটি এন্টিফিডার ও প্রবাহমান কীটনাশক। হপারশট প্রতিরোধক ও প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। বাদামি গাছফড়িং ও অন্যান্য শোষক পোকা দমনে অত্যন্ত কার্যকরি। এর একর প্রতি প্রয়োগ মাত্রা ১২০ গ্রাম। ১০ লিটার পানিতে ৫ শতাংশ পানির জন্য ৬ গ্রাম হারে স্প্রে করতে হবে।

আমি নিজে কৃষককে এটি ব্যাবহার করিয়েছি এবং ফলাফল দেখেছি। এটি ব্যাবহারের পর চমৎকার ফলাফল দেখে কৃষক অত্যন্ত খুশি এবং ধানের কারেন্ট পোকা দমনে আর কোনো কীটনাশক ব্যাবহারে সে রাজি নয়।


ধানের বাদামি গাছফড়িং দমনে সর্বশেষ আরেকটি চমকপ্রদ কীটনাশকের নাম না বললেই নয়। সেটি হলো সেমকো কোম্পানির পিলারনিট। তাইওয়ানের পিলারকুইম কোম্পানি হতে আমদানিকৃত সর্বাধুনিক কীটনাশকের গ্রুপ নিতেনপাইরাম গ্রুপের পিলারনিট ১০ এসএল ধানের বাদামি শোষক পোকা এবং ফসলের সাদা মাছি দমনে অত্যন্ত দ্রুত কার্যকর। এটি এতো দ্রুতগতিতে কাজ করে যে স্প্রে করার দশ থেকে পনেরো মিনিটের মধ্যেই পোকা মারা যায়। নিজে উপস্থিত থেকে অনেক কৃষককে পিলারনিট ব্যাবহার করিয়েছি তাই এর কার্যকারিতা নিজ চোখেই দেখেছি। পিলারনিট একটি প্রবাহমান, স্পর্শক এবং পাকস্থলী বিষক্রিয়াসম্পন্ন কীটনাশক। এর ব্যাবহারবিধি হলো প্রতি লিটার পানিতে ২ মিলি হারে এবং একর প্রতি প্রয়োগমাত্রা ৪০০ মিলি।

আরো পড়ুন: ধানের ব্লাস্ট রোগে সেমকো এনেছে ছত্রাকনাশক সেলটিমা

যেকোনো কীটনাশক ব্যাবহারে সাবধানতা:

  • বাতাসের বিপরীতে স্প্রে করবেন না।
  • স্প্রে করার সময় শরীর ও নাক ঢেকে নিন।
  • স্প্রে করার সময় খাওয়া ও ধূমপান থেকে বিরত থাকুন।
  • স্প্রে করা শেষ হলে জলাশয় /পুকুর থেকে দূরে মেশিন পরিস্কার করুন।
  • স্প্রে শেষে সমস্ত শরীর সাবান দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • ব্যাবহারের পর খালি বোতল /প্যাকেট মাটিতে পুঁতে ফেলুন।
ধানের বিএলবি রোগের সমাধান নাফকো এসওপি সার।
বাদামি গাছফড়িং, বাদামি গাছফড়িং আক্রান্ত জমির সমাধান পিলারনিট,হপারশট, সপসিন। সেমকো কর্পোরেশন লিমিটেড।
বাদামি গাছফড়িং আক্রান্ত জমিতে পিলারনিট

    No comments:

    Post a Comment